ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ – পৃথ্বীরাজ সেন

ব্রহ্ম বৈবর্ত পুরাণ হল একটি বৃহদায়তন সংস্কৃত ধর্মগ্রন্থ এবং হিন্দুধর্মের অন্যতম প্রধান পুরাণ। এটি একটি বৈষ্ণব ধর্মগ্রন্থ।

এই পুরাণের কেন্দ্রীয় চরিত্র হলেন কৃষ্ণ ও রাধা। এটিকে অপেক্ষাকৃত আধুনিক কালে রচিত পুরাণগুলির অন্যতম মনে করা হয়।

ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ - পৃথ্বীরাজ সেন

 

ব্রহ্ম বৈবর্ত পুরাণ গ্রন্থের বৈশিষ্ট্য হল এই যে, এই পুরাণে কৃষ্ণকে সর্বোচ্চ ঈশ্বর বলা হয়েছ এবং বিষ্ণু, শিব, ব্রহ্মা, গণেশ প্রমুখ দেবতাদের একই দেবতার বিভিন্ন রূপ এবং কৃষ্ণের অবতার বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এছাড়া এই পুরাণে রাধা, দুর্গা, লক্ষ্মী, সরস্বতী, সাবিত্রী প্রমুখ দেবীদের ‘প্রকৃতি’র অবতার বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ - পৃথ্বীরাজ সেন

মহাভারত ও দেবীমাহাত্ম্যম্‌ গ্রন্থদুটিতে প্রাপ্ত কিছু উপাখ্যানও এই পুরাণে সংযোজিত হয়েছে। ব্রহ্ম বৈবর্ত পুরাণ গ্রন্থের আরও একটি উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য হল, এই পুরাণে রাধার মাধ্যমে নারীসত্ত্বাকে গৌরবোজ্জ্বল করা হয়েছে।

ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ – পৃথ্বীরাজ সেন

ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ - পৃথ্বীরাজ সেন

১. ব্রহ্ম খণ্ড
২. প্রকৃতি খণ্ড
৩. গণেশ খন্ড

ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ - পৃথ্বীরাজ সেন

৪. শ্রীকৃষ্ণ জন্ম খণ্ড

আরও পড়ুনঃ

ঋভু ও নিদাঘের কাহিনি – বিষ্ণুপুরাণ – পৃথ্বী-রাজ সেন

বায়ু পুরাণ – পৃথ্বী-রাজ সেন

বায়ু পুরাণ ৮১-৯০ – বায়ু পুরাণ – পৃথ্বী-রাজ সেন

বায়ু পুরাণ ৯১-৯৮ – বায়ু পুরাণ – পৃথ্বী-রাজ সেন

বায়ু পুরাণ ৯৯-১১০ – বায়ু পুরাণ – পৃথ্বী-রাজ সেন

 

মন্তব্য করুন